কাঁঠাল খেলে কেন করো’না হবে না – সময়ের সেরা ওষুধ

মৌসুমি ফল কাঁঠালের রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। এ সময় পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ কাঁঠাল খেতে পারেন।

এতে রয়েছে ফাইবার, প্রোটিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাংগানিজ, কপার, ভিটামিন-এ, ভিটামিন-সি, কার্বসহ আরও অনেক পুষ্টিগুণ।

আসুন জেনে নিন পাকা কাঁঠালের স্বাস্থ্য উপকারিতা-

১. গবেষণায় জানা গেছে ,অতিরিক্ত কাঁঠাল খেলে শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায় এবং শরীর গরম থাকে যার কারণে করো’না রোগের প্রভাব একেবারে কমে যায়। তাই আপনারা অবশ্যই এই সময় বেশি পরিমানে কাঁঠাল খাবেন ।এর ফলে করো’না হওয়ার সম্ভবনা একেবারে কমে যাবে ।

২. ত্বক সুন্দর রাখতে নিয়মিত খেতে পারেন কাঁঠাল। কাঁঠালে থাকা ভিটামিন-সি ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে।

৩. কাঁঠালে রয়েছে পটাশিয়াম, ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

৪. ভিটামিন-এ রয়েছে কাঁঠালে, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।৫. কাঁঠালে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফ্ল্যাভোনয়েড ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে ফ্রি রেডিক্যাল প্রতিরোধ করে, যা ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য দায়ী।

৬. কাঁঠালে রয়েছে কার্বোহাইড্রেট ও ক্যালোরি। খেলে তাৎক্ষণিক শক্তি পাওয়া যায়।

৭. কাঁঠালে প্রচুর পরিমাণে আঁশ থাকায় হজমের সমস্যা দূর করে।

৮. কাঁঠালে থাকা ক্যালশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম হাড় মজবুত করে ও অস্টিওপোরসিস রোগ প্রতিরোধ করে।

৯. দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে কাঁঠাল।

১০. কাঁঠালের বিচিতেও রয়েছে প্রোটিন। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় কাঁঠালের বিচি খেতে পারেন। ফলে শরীরের রক্ত সরবরাহ বাড়বে। এ ছাড়া কাঁঠালে থাকা কপার থাইরয়েডগ্রন্থি ভালো রাখে।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

عن admin

شاهد أيضاً

أسباب حساسية الضوضاء والعلاجات

حساسية الضوضاء إنه ضعف سمعي يجعل من الصعب التعامل مع الأصوات التي تسمعها كل يوم، …

اترك تعليقاً

لن يتم نشر عنوان بريدك الإلكتروني.